Notary public : নোটারি কী, কেন করা হয়? update – 2022

Notary public : নোটারি পাবলিক বা নোটারি শব্দের সঙ্গে আমরা কম-বেশি পরিচিত। আমাদেরদৈনন্দিন বিভিন্ন কজে নোটারির প্রয়োজন হয়। কিন্তু আমরা জানি না কোথায় কিভাবে নোটারি করতে হয়। আর নোটারি বিষয়ে না জানার ফলে আমাদের বিভিন্ন সমস্যার সম্মুখীন হতে হয়। আমরা অনেক সময় বিভিন্ন ডকুমেন্ট সরকারি গেজেটেড কর্মকর্তাকে দিয়ে সত্যায়ন করি। একইভাবে নোটারিও সত্যায়িত করতে হয়, তবে এর প্রক্রিয়া একটু ভিন্ন ধরনের। অনেকসময় শিক্ষার্থীদের বিদেশে উচ্চশিক্ষার জন্য প্রয়োজনীয় কাগজপত্র নোটারি করতে হয়।

উচ্চশিক্ষার জন্য বিভিন্ন দেশের বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে আবেদন করতে হয়। তখন এসব প্রতিষ্ঠান বিভিন্ন ডকুমেন্টর নোটারি সনদ চায়। উচ্চশিক্ষার জন্য আবেদন করার ক্ষেত্রে কাগজপত্র সত্যায়িত করা অনেক ক্ষেত্রেই বাধ্যতামূলক। তাই শিক্ষার্থীদের এ বিষয়ে যথেষ্ট সতর্কতা অবলম্বন করতে হয়। যে কোন শিক্ষার্থী চাইলে সংশ্লিষ্ট বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়বেসাইট থেকে কোন্ কোন্ ডকুমেন্ট নোটারি করতে হবে সে বিষয়ে তথ্য পেতে পারে।

Notary public কী?

ডকুমেন্ট Attestation এর মতো নোটারিও সত্যায়নের একটা পদ্ধতি। তবে Attestation সঙ্গে এর পার্থক্য হলো নোটারি করাতে হয় আইনজীবীর কাছ থেকে। একজন আইনজীবী নোটারি করতে গিয়ে সংশ্লিষ্ট ডকুমেন্টে সিল স্বাক্ষর দেয়ার পাশাপাশি ডকুমেন্টগুলোতে লাল রাবার টাইপ গোলাকার কাগজ নোটারি পাবলিকের ছাপসহ আঠা দিয়ে লাগিয়ে দেন।

নোটারির ইতিহাস

নেগোশিয়েবল ইন্সট্রুমেন্ট অ্যাক্ট ১৮৮১ এ ঋণখত, দাবিনামা এবং চেক সংক্রান্ত বিধি প্রণয়ন করা হয়। এটি আইনে পরিণত হয় এবং কার্যকর হয় ১৮৮২ সালের ১ মে নেগোশিয়েবল ইন্সট্রুমেন্ট অ্যাক্টের সেকশন ১৩৮ এ সরকারকে ক্ষমতা প্রদান করা হয়েছে অ্যাক্টের অধীনে কোন ব্যক্তি অথবা তার অফিসের বলে নোটারি পাবলিক হিসেবে নিযুক্তি দেয়ার জন্য। পাকিস্তান সরকার প্রণীত নোটারিয়াল অর্ডিন্যান্স ১৯৬১ এবং নোটারিয়াল রুলস ১৯৬৪ অনুসরণ করেই মূলত নোটারি পাবলিক নিযোগ দেওয়া হয়। তাতে তাদের ক্ষমতা, কার্যাবলী, বেতন ভাতাদি ইত্যাদি সুনির্দিষ্ট করা থাকে। নোটারিয়াল অধ্যাদেশ প্রবর্তনের পূর্বে নোটারি পাবলিক নিয়োগ দেওয়া হতো ইংল্যান্ডে মাস্টার অব ফ্যাকাল্টিজ কর্তৃক।

নোটারি কেন করা হয়

গুরুত্বপূর্ণ কোনো কাজে ডকুমেন্ট উপস্থাপন করতে হলে সাধারণত নোটারি পাবলিকের মাধ্যমে সত্যায়িত করে জমা দিতে হয়। বিদেশে যাওয়ার ক্ষেত্রে এই সত্যায়িত করা বাধ্যতামূলক। এর মধ্যে রয়েছে –

  • জমিজমা সংক্রান্ত দলিল-দস্তাবেজ হলফনামা,
  • বিবাহবিচ্ছেদ,
  • গাড়ি বেচাকেনা,
  • শিক্ষাগত যোগ্যতার সনদপত্র,
  • চারিত্রিক সনদপত্র,
  • জন্ম-মৃত্যুর সনদপত্র এবং

বিদেশে নাগরিকত্বের জন্য আবেদনের ক্ষেত্রে নোটারি পাবলিক দিয়ে সত্যায়িত করা বাধ্যতামূলক।

এ ছাড়া বাণিজ্যিক দলিলপত্র যেমন পেমেন্ট অথবা ডিমান্ডের ক্ষেত্রে নিরাপত্তা জোরদার করতে, বটম্‌রি এবং রেসপনডেনটিয়া বন্ড (bottomry and respondantia bonds), চার্টার পার্টি এবং অন্যান্য বাণিজ্যিক দলিলপত্র তৈরিতে নোটারির ব্যবহার রয়েছে।

যেভাবে নোটারি করতে হয়

Notary public করতে গেলে আইনজীবী আপনার মূল কাগজপত্র যাচাই করে দেখবেন। এর পর তিনি নিশ্চিত হলে তা সত্যায়িত করবেন। মূল কাগজপত্র বলতে বোঝানো হচ্ছে শিক্ষাগত যোগ্যতার সনদ, জন্ম ও মৃত্যুর সনদ, চারিত্রিক সনদ ইত্যাদি। আর আপনি যদি বিয়ে, তালাক কিংবা হলফনামা তৈরি করতে চান, তাহলে উভয় পক্ষের উপস্থিতিতে নোটারি করতে হবে।

নোটারি বিধিমালা ৬০(ক) অনুযায়ী, একজন নোটারিয়ান বা যিনি নোটারি করে দেন, তাঁর নির্দিষ্ট কার্যালয় থাকতে হবে। আর নোটারি করার সাইনবোর্ড কার্যালয় ছাড়া অন্য কোথাও ঝোলানো যাবে না।

নোটারি করতে খরচ

Notary public করতে কত খরচ হয়? অনেকে মনে করেন, নোটারি পাবলিকের জন্য হাজার খানেক টাকা লাগে। এটি ভুল। এমন ভুল ধারণা ছড়ানোর অবশ্য কারণও রয়েছে। এক শ্রেণীর দালাল নোটারি পাবলিকের ব্যবসা খুলে সাধারণের কাছ থেকে হাজার টাকা হাতিয়ে নেন। কিন্তু এ কাজের জন্য সরকারের নির্ধারিত ফি রয়েছে। সরকার নির্ধারিত ফি সত্যায়নের কাজে ১০ টাকা, আর যেকোনো স্ট্যাম্পে হলফনামা, চুক্তিপত্রের ক্ষেত্রে ২০-২৫ টাকা খরচ হয়। অথচ অনেক নোটারি পাবলিক প্রার্থীদের কাছ থেকে ৫০ থেকে এক হাজার টাকা পর্যন্ত আদায় করে থাকেন।

মূল ডকুমেন্টে নোটারি করা যায় কি না

সাধারণত নোটারি করতে হয় ডুপ্লিকেট কপি/ফটোকটিতে। মূল কপিতে Notary public করা যায় না। ভালো অফসেট কাগজে ফটোকপি করিয়ে নিতে হয়। অরিজিনাল ডকুমেন্টসগুলো সঙ্গে রাখতে হয় আইনজীবীর দেখার সুবিধার জন্য। শিক্ষার্থীদের জন্য অরিজিনাল কাগজে ভুলেও আচড় পড়তে দেওয়া যাবে না। এমনকি যত্ন করে লেমেনেটিং করানো যাবে না।

নোটারি ডকুমেন্টে কি কি থাকে

নোটারি ডকুমেন্টে একজন আইনজীবী প্রধারণতঃ Attested seen the original লেখা সিল দিয়ে থাকেন। এছাড়া আইনজীবীর সিল ও লাল কাগজে নোটারির লোগো এবং তারিখের সিল দেয়া হয়। ডকুমেন্টের উপরে আইনজীবী Authenticity Certificate দিবেন, যেখানে তিনি ইংরেজিতে ক্লেইম করবেন, যে তিনি সব অরিজিনাল ডকুমেন্টস দেখে নোটারি করেছেন। নোটারি শেষে তিনি ডকুমেন্টস একত্রে স্টেপল করে দেবেন।

নোটারি করার আইনজীবী কারা

সকল আইনজীবী নোটারি করতে পারেন না। এজন্য আইনজীবীকে সরকারের কাছ থেকে অনুমোদন নিতে হয়। আইন বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের আইন ও বিচার বিভাগ আইনজীবীদের নোটারি করার অনুমতি দিয়ে থাকে। সাধারণত কোনো আইনজীবী, যাদের নোটারি করার সনদ রয়েছে, তাঁদের মাধ্যমে নোটারি সম্পাদন করাতে হয়। প্রতি জেলায় জেলা আইনজীবী সমিতিতে একাধিক নোটারি আইনজীবী রয়েছে।

তাছাড়া যে সকল আইনজীবীরা নোটারি করে থাকেন তারা তাদের সাইনবোর্ডেও নোটারির বিষয়টি উল্লেখ করে থাকেন। আইনজীবী কমপক্ষে সাত বছর আইন পেশায় আছেন অথবা বিচার বিভাগের সদস্য হিসেবে কমপক্ষে পাঁচ বছর কর্মরত ছিলেন এবং সরকারের আইন প্রণয়ন কাজে নিয়োজিত এমন ব্যক্তি নোটারি করার কাজে সনদ পাবার যোগ্য। এ বিষয়টি নিয়ন্ত্রিত হয় নোটারিস অর্ডিন্যান্স এবং নোটারিস রুলস-১৯৬৪ দ্বারা।

তবে ইউরোপ ও আমেরিকায় Notary public নিয়োগ পাওয়ার যোগ্যতা অর্জন করতে প্রতিযোগিতামূলক পরীক্ষায় অবতীর্ণ হতে হয়। আইনজীবি, ফার্মাসিস্ট, চিকিৎসক ইত্যাদি পেশার মানুষেরা নোটারি হিসেবে নিয়োগ পেতে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করার যোগ্য। সাধারণত তিন বছরের জন্য Notary public নিয়োগ দেওয়া হয় এবং নিযুক্ত ব্যক্তিকে নির্ধারিত ফি পরিশোধ এবং কোন নির্দিষ্ট এলাকায় কাজ করার অনুমতি দিয়ে একটি সনদ প্রদান করা হয়। নির্দিষ্ট জায়গায় কোন Notary public যথাযথ কারণ দেখিয়ে সরকার বরাবর আবেদন করতে পারেন তার কর্মক্ষেত্র বিস্তৃত করার জন্য। সরকারি গেজেটে প্রতিবছর সরকার নোটারি পাবলিকের একটি তালিকা প্রকাশ করে থকে।

নোটারিতে প্রতারণা

নিয়মানুযায়ী কাগজপত্র নোটারি করার সময় আপনার নিজের আইনজীবীর সামনে উপস্থিত থাকতে হবে। অনেক সময় প্রার্থীর অনুপস্থিতিতে নোটারির কাজ সম্পাদন ও ভুয়া কাগজপত্রের ভিত্তিতে নোটারি করা হয়। নোটারির কাজ হয় রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে। অনেক অবৈধ Notary public নিজেরাই সিলমোহর বানিয়ে প্রতারিত করে থাকেন। কাজেই এ বিষয়ে সতর্ক থাকতে হবে।

এছাড়া মারা গেছেন এমন নোটারি পাবলিকের সিলমোহর ব্যবহার করেও অনেকে প্রতারিত করতে পারেন। বয়সের মিথ্যা তথ্য দেওয়া সনদ, বিবাহবিচ্ছেদ ও মামলার কাজে মিথ্যা হলফনামা, পেছনের তারিখে দলিল তৈরি, মৃত ব্যক্তিকে জীবিত বানিয়ে আমমোক্তারনামা বানানো, মিথ্যা চুক্তিপত্র, ভুয়া আপসনামাসহ বিভিন্ন ধরনের মিথ্যা সনদ এবং দলিল সম্পাদনার কাজ করছেন এক শ্রেণীর অবৈধ নোটারি পাবলিক। ভুয়া নোটারিরা অনেক ক্ষেত্রে সাদা কাগজে নোটারির কাজ সম্পন্ন করে অপরাধী চক্রকে বিভিন্নভাবে অপরাধ করতে সহযোগিতা করছেন বলে অভিযোগ রয়েছে। অতএব নোটারি করার আগে নোটারি পাবলিক সম্পর্কে ভালো করে জেনে নিন।

আরও পড়ুন:

আইনে নাই তবুও প্রচলিত কোর্ট ম্যারেজ

Leave a Comment